কবিতার জন্য শোক

লিখেছেন - শুভশ্রী রায়

বাংলা কবিতা, তুমি আজ কোথায় চলেছ? তুমি তো চির কালই সেরা সেরা অনুপম কোকিলের মুখ থেকে মধুময় শব্দে-ছন্দে জীবনের অমৃত কথাই বারবার বলেছ। তুমি তো চিরকালই কষ্টে পুড়ে যাওয়া কবিদের কলমে দাউ দাউ করে জ্বলেছ কখনো বা অজস্র হৃদয়ের অশ্রু হয়ে গলেছ তবু তো চিরকাল ন্যায্য কথাই বলেছ! এত এত প্রতিভা তোমাকে সযতনে পোষণ করেন এত এত উজ্জ্বল কবি তোমার ভান্ডার ভরেন শত শত গুণী তরুণ তরুণী তোমাকে সাজায় কাগজে কলমে অক্ষরে অক্ষরে ভালোবেসে সীমাহীন আবেগে এপার ওপার বাংলায় প্রতি দিন আর সেই তুমি কী না আজ সরকারি কলঙ্ক নিতে বাধ্য হলে এবং হয়তো বা অনুষ্ঠানের শেষে আড়ালে কাঁদলে,হায় কবিতা, তুমি রবি কবির জন্মদিনের ওপর দিয়ে কোন চুলোয় চলেছ? তোমাকে যারা জীবন্ত পুড়িয়ে দিল আজ তাদের কে থামায়? এখন দুঃশাসনের রাজ! এখন কবিতাও শাসকের মুঠোয় বন্দী, ভয়ে কাঁপে তার পেলব কোমল স্পর্শকাতর প্রাণ। রীতিমতো মঞ্চ বানিয়ে হয় তার অপমান। ও বাংলা কবিতা, অপমানে আজ তুমি হোমরাচোমরাদের লাগানো আগুনে ঠিক কত বার পুনর্জন্মের আশা ছেড়েই জ্বলেছ? অসহায় হয়ে তুমি কী আজ অবশেষে নিজের অশ্রুসিক্ত মৃত্যুশ্লোক নিজেকে বলেছ?

বাংলা কবিতা, সরকারি গ্রাস