ছলনা ময়ী “

শব্দের বারান্দা

তুমি কি ওগো তন্দ্রা হরিণী হৃদয়ে বন্দিনী
দিচ্ছ উঁকি দুর থেকে দাঁড়িয়ে ,
তোমার ছায়ার পরশে মনের হিল্লোলে
খুঁজছি তাই তোমায় আমি দু হস্তে বাড়িয়ে ।।

বুঝিনি কো আমি তোমার আদ পল্লবিত
পদ চারণের মায়াবী সচকিত হেতু,
আমার হৃদয় পল্লবে জাগ্রত শিহরিত
স্পন্দনে স্পন্দিত যেমন ধূমকেতু ।।

জাগিয়েছ বদ্ধ হৃদয় কুন্ঞ্জে পুন পঞ্জি ভূত
আশার পুষ্প চন্দনের স্বপ্ন রেখা
ব্যথিত হৃদয়ে নিঃস্ব স্পন্দনে হা হুতাশে
কাতর না পেয়ে তোমার দেখা ।।

তোমার প্রচ্ছ্বরিত কুট কৌশলে বিচ্ছুরিত
হীন ছলনার প্রবন্ঞ্চিত নিখাত জালে,
নিঃস্ব উন্মাদে ঔদাসিন্য মনের কল্প বাগানে
দারস্থ আমি মত্ত পাগল বলে ।।

তুমি হিংসুটে – স্বার্থপর বিবেকহীনা
ছলনাময়ী মায়াবী দাম্ভিক নারী ,
বাজিয়েছ আমার অকপট হৃদয়ে মরণ ঘন্টা
বিঁধিয়ে বিষমাখা ধারালো সুক্ষ্ম খন্ঞ্জরী ।।

সমাপ্তি ।।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

Leave a Reply