মাঠের দূর্বার মতো সে’ বাসনা আজ
বন্যার ধকলে রয়ে
কখনো উত্তাপ সয়ে
নিরীহ মাটির বুকে মিশে যার গান –
ওদেরই যতনে ফের ফিরে পেতে আহত জবান!

জীবন এমনই হয়
ভেবো না এ’ পরাজয়
নক্ষত্র বুঝবে শুধু এ’ ব্যথার ভার –
সিন্ধুর অতলে কেন ক্ষয়ে নামে অটল পাহাড়!

এরূপেই আছে বেঁচে উত্তুরে বাতাস
পৌষের চুলায় যেচে ভাপা পিঠা ভোরে মেলে পাত,
অথচ জানে সে’ গেছে চিরতরে চলে
আমন আবাদ তার
ভুলে শত আবদার
কালের সাথেই করে একদিন গোপন আঁতাত।

সহস্র বছর হলো জেগে আছি একা
ভাবালে সাঁঝের ধারা হুতোমেরে এভাবেই নেচে,
হয়তো অনন্তকাল আরো র’বো বেঁচে!
আরো র’বো বেঁচে!