নগ্ন কালের দাবী,
দেখতে আমায় দিবেই উঁকি গুপ্ত ভাঁড়ের চাবি।
গাইবো যদি আঁখির পাতে বস্ত্র ছেঁটে রোজ –
ভাবছো পাবে কেউ কি তখন ক্ষণিক আমার খোঁজ!

ইস্ত্রি মারা ঠোঁটে,
নাচবে আশি আমায় স্মরেই স্বপ্ন বেঁধে গোটে।
সাজবে শ’ নৃপ রজকিনী
এই আমাকেই করতে ঋণী
বইবে মা সব পুষ্প রাণীর ভোজ –
ভাবছো পাবে কেউ কি তখন ক্ষণিক আমার খোঁজ!

গর্বে হতে ডাকু,
স্কন্ধে নিবে সাঁই আমাকে সাঁইকে মেরে চাকু।
রাঁধতে যা খাস বুলি,
শ্যাম সতী গায় মাখবে মোরে মুক্ত রেখে চুলি।
দূর কি হবে ধরাশায়ী
বলবে যে সব ক্ষণস্থায়ী?
ফুটফুটে প্রাণ চাইবে ওভার ডোজ –
ভাবছো পাবে কেউ কি তখন ক্ষণিক আমার খোঁজ!