আমার স্মৃতি

লিখেছেন - শেখ মোজাম্মেল হক রুবেল

রাস্তা দিয়ে হাঁটছি আপন মনে আর জরাজীর্ণ গাছগুলো যেন আমাকে ডেকে বলছে, তুমি কেন আমাদের দেখতে আসো না আসলে এই গাছগুলো একটা সময় আমার খুবই কাছের বন্ধুর মত ছিল। আর এই রাস্তা টা আমার এতটাই প্রিয় ছিল যে, আমি দৈনিক একবার হলেও এই রাস্তা দিয়ে ঘুরে যেতাম আর গাছগুলো কে আপন মনে হাত বুলিয়ে দিতাম। তখন গাছগুলো অবশ্য সতেজ ছিল। আর এই রাস্তার এক পাশে যে ছোট খাল টা এটাও আমার কাছে খুবই পছন্দের জায়গায় একটা সময় আমি এখানে এসে গোসল দিতাম। আরও কত কি!!! আসলে আমি হারিয়ে গিয়েছিলাম এক অজ্ঞাত ছলনাময়ীর ভালবাসায়। ও কে আমি মন দিয়ে ভালবেসেছি কিন্তু ও আমার সাথে শুধু-ই প্রতারণা করে গেছে। আমি তা এখন হারে, হারে বুঝতে পারছি। আমি আসলে ওর দেওয়া আঘাত সহ্য করতে না পেরে,‌ এক প্রকার পাগল হয়ে অসচেতন ভাবে বিভিন্ন স্থানে চলাফেরা করতাম । একদিন আমি এমন-ই ঘুরছিলাম রাস্তা দিয়ে হঠাৎ একটি বড় ট্রাক এসে আমাকে ধাক্কা দিয়ে চলে যায়। আমি হয়তো গাড়িটির হর্ণ শুনতে পাই নি কারণ আমার তখন হয়তো জ্ঞান বোধ ছিলনা পাগল বলে। তারপর থেকে আমি দীর্ঘ দশ বছর জ্ঞানহীন ছিলাম আজ এত বছর পর আমি স্বাভাবিক হয়েছি আর ফিরে এসেছি আমার সেই পুরনো জায়গায়, যেখানে জড়িত আমার প্রিয় মুহূর্ত গুলো। তাই আজ এত বছর পর এখানে এসেছি বলে গাছগুলো আমাকে অনেক অভিমানের অভিযোগ করছে। আর সেই প্রিয় রাস্তাটি যেন আমাকে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে কান্না করছে। আমি এসেছি ঠিক-ই কিন্তু হারিয়ে গেল আমার সোনালী জীবনের দশটি বছর, ঐ ছলনাময়ীর জন্য। আমি তাকে কখনোই ক্ষমা করব না।