হোটেলের ঘরে একজন

লিখেছেন - জয় গোস্বামী

তোরা সব উঠে গেলি পাহাড়ে ঝোলানো সরু ব্রীজে- তোদের ধূসর জামা, ছেঁড়া-ছেঁড়া নীল-সাদা টুপি ভেসে ভেসে এলো আর হোটেলের সারাঘর ভিজে- প্যাগোডার মতো ছাদ – তার পাশ দিয়ে চুপি চুপি এমন বিব্রত, সিক্ত ঘরখানি লক্ষ করে তিনখানি ঝাউ । সার বেঁধে উঠে যাওয়া পাইনের সবুজ রিবনে যে-কটি জলের কণা ছিল, তারা হাওয়া লেগে বাতাসে উধাও … এমন বাতাস যার কোনোদিন ওঠেনি জীবনে সে দ্যাখে আকাশ থেকে নেমে এসে একজন লামা মুন্ডিত মাথায় একা বসেছেন তাঁর শুভ্র মঠের শিখরে রূপোলী ঝলকে জ্বলছে দূরের ঝুলন্ত ব্রীজ, ভাসমান নীল-সাদা জামা একজন মুগ্ধ শুধু বসে আছে হোটেলের ঘরে ।